সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন

আউটসোর্সিং কি, কেন এবং কিভাবে আউটসোর্সিং করবেন?

আউটসোর্সিং কি, কেন এবং কিভাবে আউটসোর্সিং করবেন?

আউটসোর্সিং কি

আউটসোর্সিং শব্দটি অনেকের সাথে পরিচিত। আবার অনেকের কাছে কথাটি নতুন। আউটসোর্সিং হচ্ছে তথা ফ্রিল্যান্সিং, এর অর্থ হল একটি স্বাধীন পেশা। অর্থাৎ স্বাধীনভাবে কোন কাজ করে আয়ের একটি অন্যতম পেশা। একটু সহজ ভাবে বলতে গেলে, ইন্টারনেটের মাধ্যমে অন্য কোন বা ভিন্ন প্রতিষ্ঠান ভিন্ন ধরনের কাজ প্রদান করে তা ফ্রিল্যান্সারদের মাধ্যমে তা করিয়ে নেয়া। নিজের প্রতিষ্ঠান ব্যতীত অন্য কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানকে দিয়ে  কাজ করানোকেই মূলত আউটসোর্সিং বলে। যারা আউটসোর্সিংয়ের কাজ করেন,  তারাই মূলত ফ্রিল্যান্সার।

কেন আউটসোর্সিং করবেন

বিশ্বের প্রায় প্রত্যেকটি দেশেই তথা আমাদের বাংলাদেশে আউটসোর্সিং জগতে কাজ করে এমন লাখ লাখ ফ্রিল্যান্সার রয়েছেন। কিন্তু তাদের সবাই শতভাগ সফল নয়। তারা কিছু অসৎ লোকের পাল্লায় পড়ে আউটসোর্সিং এর উপর নেতিবাচক ধারণা তৈরী হয়েছে। সবসময় মনে রাখবেন আউটসোর্সিং একটি স্বাধীন বা মুক্ত পেশা,  যেখানে আপনার ব্যক্তিগত জবাবদিহিতার চেয়ে কাজের জবাবদিহিতা অনেক বেশি। আপনি এই জগতে আসবেন অবশ্যই আয় করার জন্য। একটি কথা সবসময় মনে রাখবেন, আপনি যার কাছ থেকে টাকা উপার্জন করবেন তাকে কোন না কোন সেবা প্রদান করেই এই অর্থ উপার্জন করতে হবে। তাই যদি হয়, আপনার কাজে যদি ত্রুটি থাকে, আপনার কাজে যদি কোন প্রকার জবাবদিহিতা না থাকে,  এবং আপনার কাজে যদি অনেক কোন স্বচ্ছতা না থাকে তবে আপনার পক্ষে এই সেক্টরে সফল হওয়া অসম্ভব। আউটসোর্সিং এ সবসময় আপনি নিজেকে দিয়ে মূল্যায়ন করবেন। আপনার কাজের দক্ষতা আপনাকে উপরের দিকে যাওয়ার রাস্তা তৈরি করে দিবে, তাই আপনাকে যে কাজ দেওয়ার হবে সেই কাজ যদি আপনি সঠিক ভাবে সঠিক সময়ের মধ্য দিয়ে কাজটি গ্রাহককে প্রদান করতে না পারেন তাহলে আপনাকে সেখান থেকে ছিটকে যেতে হবে সেই মুহূর্তেই, আর যদি তা পজিটিভ হয়, তাহলে সেও খুশি থাকবে এবং আপনারও ভবিষতে কাজ পাওয়ার সম্ভাবনাও অনেক বেড়ে যাবে।

কিভাবে আউটসোর্সিং করবেন

আমরা আউটসোর্সিং করা যতটা সহজ ভাবি কাজটা আসলে ততটা সহজ নয়। আসলে এই পৃথিবীতে কোন কাজই সহজ নয়। আমরা ভাবি একরকম কিন্তু বাস্তবে অন্যরকম। অনেকেই চিন্তা করেন আউটসোর্সিং করে ঘরে বসেই খুব সহজে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করা যায়। কিন্তু বাস্তবে অনলাইনে আয় করার চিত্রটা একটু ভিন্ন। আপনার যদি অনলাইনে কাজের দক্ষতা থাকে তাহলে শুধুমাত্র আউটসোর্সং নয় অন্য যেকোন সেক্টরে আপনি খুব সহজেই সফল হতে পারেন। আউটসোর্সিং এর ভিন্নতা হল, এখানে (আউটসোর্সিং) কাজ করা এবং অনলাইনে কাজ পাবার স্বাধীনতা আছে যা আপনি অন্য কোন সেক্টরে তা পাবেন না। পার্থক্য হল আপনার পরিশ্রমের সঠিক মূল্যায়ন এখানে করা হবে।  অন্যান্য পেশায় যার জন্য প্রতিনিয়ত কর্তাদের সঙ্গে কর্মকর্তাদের মন কাষাকষি হরহামেশই লেগেই থাকে, যা আউটসোর্সিং করলে আপনি পাবেন না। এক কথায় আউটসোর্সিং হল উপযুক্ত কাজ করে এবং তা থেকে সহজ পদ্ধতিতে আয় করার একটি অন্যতম উৎস। যেখানে আপনার সফল হতে হলে, অবশ্যই আপনাকে প্রথমেই দক্ষতা অর্জন করতে হবে, এবং কাজ করার জন্য আপনাকে সঠিক মার্কেটপ্লেসে বেচে নিতে হবে।

কিভাবে মার্কেটপ্লেসে কাজ করবেন

ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে হলে আপনাকে নির্দিষ্ঠ একটি বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করতে হবে। যেমন-ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন, গ্রাফিক্স ডিজাইন এবং ডিজিটাল মার্কেটিং ইত্যাদি এ সকল বিষয় সমূহের মধ্যে যে কোন একটি জানতে হবে। শুধু এই বিষয় গুলোই নয় আরও অনেক ক্ষেত্র আছে যা শিখে আপনি আউটসোর্সিং করতে পারবেন। আপনি কোন প্রতিষ্ঠান থেকে যে কোন বিষয়ের উপর প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে আপনি মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে পারেন।

এ সম্পর্কিত যে কোন প্রশ্ন, কৌতুহল, জিজ্ঞাসা, কিংবা আরও বিস্তারিত জানতে এই লিংকে ক্লিক করুন।

ডিজিটাল মার্কেটিং কি এবং কেন?

ডিজিটাল মার্কেটিং কি এবং কেন?

পৃথিবীটা কম সময়ের মধ্যে ডিজিটাল পৃথিবীতে পরিণত হতে চলেছে। মোবাইল ফোন, কম্পিউটার, ল্যাপটপ,  এবং আরো অনেক ইলেক্ট্রনিক্স এর মাধ্যমে ডিজিটাল কন্টেন্ট ব্যবহার মানুষের একটি দৈনিক অভ্যাস হয়ে দাঁড়িয়েছে এবং বেশিরভাগ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানই এখনো তাদের বিপণন কৌশলে এটার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করতে পারছেনা। সত্যিকার অর্থে ডিজিটাল মার্কেটিং অন্যান্য মার্কেটিং এর চেয়ে অনেক বেশি দ্রুত ,বহুমুখী বাস্তব সম্মত। ডিজিটাল মার্কেটিং একই সাথে ভোক্তা এবং বিপনণকারী উভয়েরই সমান উপকারে আসে। সুতরাং যুগের পরিবর্তনের সাথে সাথে মার্কেটিং এর অনেক পরিবর্তন হয়েছে। ইন্টারনেট প্রযুক্তি মাধ্যমে মার্কেটিং পদ্ধতিই হল ডিজাটাল মার্কেটিং।

ডিজিটাল মার্কেটিং ভোক্তাদের নিকট যে কোন সময় যে কোন প্রকার তথ্য পৌছে দেয়ার জন্য অন্যতম। ধরুন ডিজিটাল মিডিয়া টেলিভিশন একমুখী প্রচার মাধ্যম। এর মাধ্যমে ভোক্তার রুচি চাহিদা সম্পর্কে অবগত হওয়া যায় না। ডিজিটাল মিডিয়া খবর, বিনোদন,  কেনাকাটা এবং সামাজিক ইন্টারঅ্যাকশন একটি সদা বর্ধমান উৎস এবং ভোক্তাদের এখন না শুধু আপনার কোম্পানি আপনার ব্র্যান্ড সম্পর্কে বলেছেন, কিন্তু  মিডিয়া, বন্ধু, আত্মীয়স্বজন, সহকর্মীরা, কি বলছে সেটা যেমন উন্মুক্ত হয় এবং তারা আপনার চেয়ে তাদের বিশ্বাস করার সম্ভাবনা বেশি। মানুষ তাদের চাহিদা এবং পছন্দ মতন তারা বিশ্বাস করতে পারেন ব্রান্ডের। ডিজিটাল মার্কেটিং একমাত্র পদ্ধতি যা সর্ব স্তরের ক্রেতা এবং ভোক্তার নিকট পৌছানো যায়। এবং তাদের ব্র্যান্ড সম্পর্কে তাদের মতামত সরাসরি জানা যায়।

কেন ডিজিটাল মার্কেটিং?

প্রথমত, ডিজিটাল মার্কেটিং প্রচলিত অফলাইন মার্কেটিং পদ্ধতির চেয়েও আরও বেশি সাশ্রয়ী হয়। একটি টিভি বিজ্ঞাপন বা সংবাদপত্র অ্যাড এর চেয়ে খরচ অনেক কম। তাছাড়া ডিজিটাল মার্কেটিং পৃথিবীর যে কোন প্রান্তে বহু সংখ্যক সম্ভাব্য ক্রেতার কাছে পৌঁছতে পারে।

ডিজিটাল মার্কেটিং এর প্রতিটি ধাপ এবং পর্যায় আপনি পরিমাপ করতে পারেন। কোন ডিজিটাল মিডিয়া আপনার কতটা কাজে আসছে? কতজন প্রতিদিন অ্যাড হচ্ছে? কতজন লাইক দিচ্ছে? ওয়েবসাইটে কতজন প্রতিদিন ভিজিট করছে প্রতিটা কার্যক্রম পরিমাপযোগ্য। আপনার যদি ওয়েবে উপস্থিতি না থাকে, কিভাবে আপনি সম্ভাব্য ক্রেতাদের আপনাকে খুঁজে পাবে বলে আশা করেন? ইন্টারনেটে চমৎকার কন্টেন্ট, চমৎকার প্রোডাক্ট গ্যালারী, চমৎকার প্রোডাক্ট রিভিউ থাকে তাহলে মানুষ আপনার ক্ষেত্রে আপনাকে বিশেষজ্ঞ হিসেবে ধরে নেবে। আপনি যদি সামাজিক মিডিয়ার মাধ্যমে গ্রাহকদের এবং সম্ভাব্য গ্রাহকদের সাথে যুক্ত থাকেন, তাদের প্রশ্নের উত্তর দেন তাহলে,আপনি তাদের সঙ্গে বিশ্বাস গড়ে তুলতে পারবেন আর তখন তারা আপনার প্রতিযোগীদের কাছে নয় আপনার কাছে আসবে।

অনলাইনে এক পরিসংখ্যান অনুযায়ী ৯২% ভাগ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান যারা ব্লগিং করে তারা অনলাইনে নতুন গ্রাহক পায়, প্রায় প্রতিদিন। সোশ্যাল মিডিয়ার প্রায় ১০০% বেশি লিড আসে অন্যান্য মার্কেটিং এর তুলনায়, প্রায় ৭৭% ব্যবসা প্রতিষ্ঠান তাদের নতুন গ্রাহক পায় ফেসবুক থেকে। মনে রাখবেন আপনার গ্রাহকরা বেশিরভাগ সময় আছেন অনলাইনে এবং এই সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। অনলাইন ডিজিটাল মার্কেটিংএ আপনাকে এমন নতুন কোন চমৎকার কৌশল ধরে রাখতে হবে, যা সর্বদা আপনাকে আপনার প্রতিযোগীদের থেকে এগিয়ে রাখবে। আপনাকে এমন কিছু করতে হবে আপনার প্রতিযোগীদের চিন্তায় যা আসে নি।

কিভাবে শিখবেন ডিজিটাল মার্কেটিং?

বাংলাদেশে ওয়েবসাইট ডিজাইন ডেভেলপমেন্ট, সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন, গ্রাফিক্স ডিজাইন ইত্যাদি শেখার অনেক ট্রেনিং সেন্টার পাবেন কিন্তু ডিজিটাল মার্কেটিং শেখার জন্য ভাল কোন ট্রেনিং সেন্টার একমাত্র গাজীপুরের এ এম ওয়েব ক্রিয়েশন। আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং অন্য কোন উপায়ে শিখতে পারবেন না। শিখতে পারলেও আপনি ভাল কোন কাজ করতে পারবেন না।

তবে আর দেরী কেন এখনি চলে আসুন আমাদের এই ঠিকানায়।

AMWebCreation
House#1069, Sheikh Manshion, Shibbari Road,
(Opposite of Siam CNG Pump), Gazipur Chowrasta,
Gazipur City Corporation, Gazipur
Telephone: 0249263136
Mobile: 01881049394
E-mail: amwebcreation@yahoo.com

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন কী, কেন এবং কিভাবে শিখবেন?

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন কী, কেন এবং কিভাবে শিখবেন?

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন কথাটির ভিতরে দুটি অর্থবহুল অংশ রয়েছে। একটি হচ্ছে সার্চ ইঞ্জিন এবং অন্যটি হচ্ছে অপটিমাইজেশন। সুতরাং সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন হচ্ছে সার্চ ইঞ্জিন-কে অপটিমাইজেশন করার এক ধরনের প্রযুক্তিগত ওয়েব কৌশল। এই কথাটিকে অন্যভাবেও বলা যায়- বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন হতে কোন ওয়েবসাইটকে সার্চ রেজাল্টের ভাল অবস্থানে অথবা প্রথম পাতায় নিয়ে আসার কৌশল বা প্রক্রিয়াকেই সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন বলা হয়। এটিকে সার্চ ইঞ্জিন হতে ভাল ট্রাফিক পাওয়ার এক ধরনের চালাকিও বলতে পারেন।

কেন সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন শিখবেন

আমি পূর্বেই বলেছি, ওয়েবসাইটকে সার্চ ইঞ্জিনের প্রথম পাতায় নিয়ে আসার জন্য বা ভাল ট্রাফিক পাওয়ার জন্য অপটিমাইজেশন অপরিহার্য। আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে, আমি কার ওয়েবসাইট সার্চ ইঞ্জিনের প্রথম পাতায় নিয়ে আসার জন্য কাজ করব বা এতে আমার লাভ কি? এর উত্তর হচ্ছে, আপনি ভালভাবে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন শিখে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস থেকে কাজ নিতে পারেন বিনিময়ে আপনি ওয়েবসাইটের মালিকের কাছ থেকে ডলারে আয় করতে পারবেন। ফ্রীল্যান্সিং এর মার্কেটপ্লেস গুলোতে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনের প্রচুর কাজ জমা পড়ে আছে। এই কাজের মূল্যায়ন অন্যান্য কাজের চেয়ে অনেক বেশি। তাছাড়া আপনার যদি কোন ব্লগ সাইট থাকে বা তৈরি করেন সে সাইটটিকে সার্চ ইঞ্জিনের প্রথম পাতায় নিয়ে আসার জন্য এবং এর ভিজিটর বাড়াতে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন করতে হবে। এ ছাড়াও আপনি সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন শিখে দেশে কিংবা দেশের বাইরে ভাল মানের চাকরি পেতে পারেন। বর্তমানে আউটসোর্সিং এর প্রধান ক্ষেত্র হিসেবে বিবেচনা করা হয় সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন।

কিভাবে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন শিখবেন

ভালভাবে SEO শিখার জন্য দুই ধরনের উপায় রয়েছে। একটি হচ্ছে কোন ভাল মানের আউটসোর্সিং ট্রেনিং সেন্টার হতে প্রশিক্ষন গ্রহণ এবং অন্য প্রক্রিয়াটি হচ্ছে অন-লাইন হতে ভালমানের বিভিন্ন ব্লগ/ওয়েবসাইট হতে শেখা। অন-লাইন হতে শেখার জন্য আপনাকে প্রচুর পরিমানে ধৈর্য্য ধারন করতে হবে। অন্যদিকে কোন ভাল প্রতিষ্ঠান থেকে শেখার ক্ষেত্রে অল্প সময়ে শিখে নিতে পারবেন।

তবে একটা কথা না বললেই নয়, অনলাইনে যারা প্রশিক্ষন দেয় সবাই ভাল মানের অপটিমাইজার নয়। আমার অভিজ্ঞতা থেকে বলছি, তাদের ভুল টিউটোরিয়াল দেখে সহজ জিনিসটা অনেক সময় জটিল হয়ে যায়। তাই আপনাকে খুব ভালোভাবে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন শিখতে হলে ভলো মানের সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজার এর কাছ থেকে প্রশিক্ষণ গ্রহন করতে হবে।

আমার জানামতে আউটসোর্সিং ট্রেনিং সেন্টার ঢাকা এর মধ্যে যতগুলো রয়েছে তার মধ্যে গাজীপুরে প্রতিষ্ঠিত এ এম ওয়েব ক্রিয়েশন সেরা আউটসোর্সিং ট্রেনিং সেন্টার। এখানে ভাল মানের ট্রেইনার দ্বারা সকল আউটসোর্সিং ট্রেনিং দেয়া হয়। সুতরাং অন্য কোথাও যাওয়ার পূর্বে আপনি এই সাইটি একবার ভিজিট করতে পারেন।

ফ্রী সেমিনার, কিভাবে অনলাইনে আয় করবেন?

ফ্রী সেমিনার, কিভাবে অনলাইনে আয় করবেন?

ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার

free-seminar

এ এম ওয়েব ক্রিয়েশন গাজীপুরের সর্ববৃহৎ আইটি ট্রেনিং সেন্টার এবং আইটি ইনস্টিটিউট।

এ এম ওয়েব ক্রিয়েশন ৫র্থ বারের মতো গাজীপুরে আয়োজন করতে যাচ্ছে ফ্রিল্যান্সিং এর উপর একটি ক্যারিয়ার নির্ভর ওয়ার্কশপ – ফ্রী সেমিনার, কিভাবে অনলাইনে ইনকাম করবেন??

এ সেমিনারটি সবাইর জন্য উন্মুক্ত, যেকেউ উপস্থিত হতে পারবেন।

আগামী ৩১ অক্টোবর  সোম বার ২০১৬,  , সময়: বিকাল :০০ টা সন্ধ্যা: :০০ টা

আপনি উপস্থিত থাকতে ইচ্ছুক হলে অবশ্যই দুপুর :৫০ মিঃ এর মধ্যে উপস্থিত থাকতে হবে।

এবং আপনাকে যা করতে হবে

আমাদের ফেসবুক পেজ লাইক করুন।

ফরমটি পূরণ করুন।

https://goo.gl/forms/nHYfMVQdjyOraHfm2

 

আমরা যা আলোচনা করবো

 

আউটসোর্সিং বা ফ্রিল্যান্সিং কি,

বর্তমানে আউটসোর্সিং মার্কেটগুলোতে বাংলাদেশের অবস্থান,

বর্তমান মার্কেটপ্লেসগুলোতে ওয়ার্ডপ্রেস এর চাহিদা,

ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে ফ্রিল্যান্সার ক্যারিয়ার

ইউটিউব কি ভাবে ইনকাম করা যায়।

ব্লগে কি ভাবে ইনকাম করা যায়।

ওয়েবসাইটে কি ভাবে ইনকাম করা যায়।

 

ওয়ার্কশপটির ভেনুঃ

এ এম ওয়েব ক্রিয়েশন কর্পোরেট অফিস

শেখ ম্যানশন, ২য় তলা

(সিয়াম সিএনজি স্টেশনের বিপরীত পার্শ্বে),

গাজীপুর চৌরাস্তা, গাজীপুর।

হট লাইন

০২ ৯২৬৩১৩৬

০১৮৮১০৪৯৩৯১

 

ফ্রীল্যান্সিং কেন শিখবেন

বর্তমান সময়ে ফ্রীলান্সিং বাংলাদেশ সহ সারা বিশ্বের মানুষের কাছে অর্থনৈতিক চালিকা শক্তির সবচেয়ে গুরুপ্তপূর্ণ মাধ্যম। বিশেষ করে যুব সমাজের কাছে যারা লেখাপড়ার পাশাপাশি অন্য কিছু করতে চায়। অনেক সময় দেখা যায়, এই পেশায় তারা এমনভাবে জড়িয়ে পড়েন যে , অনেকেই তাদের ভবিষ্যতের আয় উন্নতির স্থায়ী পথ হিসেবে বেচে নেয়।

আমাদের দেশ এবং বিশ্বের প্রায় দেশেই ফ্রীল্যান্সিং করেন এমন লক্ষ লক্ষ ফ্রিল্যান্সার রয়েছেন। কিন্তু তাদের সবাই কি শতভাগ সফল হতে পারছেন। সর্বদা মনে রাখবেন ফ্রীল্যান্সিং একটি স্বাধীন বা মুক্ত পেশা, সেখানে আপনার ব্যক্তিগত জবাবদিহিতার চেয়ে কাজের জবাবদিহিতা অনেক বেশি। আপনি এই জগতে আসবেন অবশ্যই ইনকাম করার জন্য, এবং আপনি যার কাছ থেকে এই ইনকাম করবেন তাকে কোন না কোন সেবা প্রদান করতে হবে। তাই যদি হয়, আপনার কাজে যদি ভুল থাকে, আপনার কাজে যদি কোন জবাবদিহিতা না থাকে, আপনি যদি কাজ করার ক্ষেত্রে অমনযোগী হন, আপনার কাজে যদি কোন স্বচ্ছতা না থাকে তাহলে আপনার পক্ষে এই সেক্টরে সফল হওয়া অসম্ভব।

আউটসোর্সিং এ সর্বদা আপনি নিজেকে মূল্যায়ন করবেন। আপনার কাজের দক্ষতায় আপনাকে উপরের স্তরে যাওয়ার রাস্তা তৈরি করে দিবে, তাই আপনাকে যে কাজ দেওয়ার হবে সেই কাজ যদি আপনি সঠিক ভাবে সঠিক সময়ের মধ্য দিয়ে কাজটি গ্রাহককে প্রদান করতে না পারেন তাহলে আপনাকে সেখান থেকে ঝরে যেতে হবে সেই মুহূর্তেই, আর যদি তা পজিটিভ হয়, তাহলে সেও খুশি থাকবে এবং আপনারও ভবিষতে কাজ পাবার সম্ভাবনাও বেড়ে অনেক খানি বেড়ে যাবে।

আপনি কিভাবে ফ্রীল্যান্সিং শিখবেন

 

বর্তমানে ফ্রীল্যান্সিং শেখার অনেক উপায় আছে। আপনি বিভিন্নি মাধ্যমে ফ্রীল্যান্সিং শিখতে পারেন। বিভিন্ন টেক্সট ও ভিডিও টিওটোরিয়াল দেখেও ফ্রীল্যান্সিং শিখতে পারেন।

 

আপনি যদি একেবারেই নতুন হন তবে এসকল টেক্সট ও ভিডিও টিওটোরিয়াল কোন কাজে আসবে না। এজন্য আপনি কোন দক্ষ আইটি ট্রেনিং সেন্টার/আইটি ইনস্টিটিউট এ সাথে যোগাযোগ করতে পারেন কিংবা সেখানে ফ্রীল্যান্সিং শিখতে পারেন।

 

আপনাদের চাহিদা অনূসারে এ এম ওয়েব ক্রিয়েশন সুনামের সাথে ফ্রীল্যান্সিং ট্রেনিং সেবা প্রদান করে থাকে।
আরও বিস্তারিত জানতে আগামী

আগামী ৩১ অক্টোবর  সোম বার ২০১৬,  , সময়: বিকাল :০০ টা সন্ধ্যা: :০০ টা ফ্রীল্যান্সিং বিষয়ক ফ্রী সেমিনারে যোগাযোগ করুন।

 

আইটি ট্রেনিং সেন্টার

Save

Save

Advantages and Disadvantages of E-Commerce

Advantages and Disadvantages of E-Commerce

Now-a-days, before taking or using things, everyone eagerly wants to know what are the advantages and disadvantages. It describes E-Commerce full impact in day to day life globally. In particulate, quick internet connection and strong tools innovation has gifted  to the Commerce area. This internet connection adds many people in this field. E-Commerce provides numerous advantages along with many disadvantages. In today’s 21st century, everything is in electrified. The electronic and via services established virtual correspondence, E-Commerce has both the sides of bright and dark. But, bright sides are more effective and valuable in our modern lives. We usually believe to take benefits and overcome the obstacles.

 

Advantages of E-Commerce

E-Commerce advantages can be seen in every sector of our modern lives. Likewise, people can broaden their national and international market with the smallest investment. Furthermore, any types of organization can do their job conveniently with the help of E-Commerce. Here are the most significant advantages of networking are below-

 

  • Best Productivity: These systems provide best products among consumers and companies as well. People find quick feedback in online because it’s convenient in all aspects.

 

  • Best Services: We  tries to give their client the best services. It does not matter he/she is an organization or a customer.

 

  • Quality Services: In this process clients can get quality product along with quality services. In fact they can choose their cherish.

 

  • Reasonable Prize: E-Commerce provides their clients best products as well as services at the reasonable prize. For this factor, people more attract on it.

 

  • Quick Transaction: When people get its features and services they can pay easily. Inversely, people can buy and sell their products easily with quick online transaction.

 

 

Disadvantages of E-Commerce

Though E-Commerce has many advantages it has some disadvantages as well. Its disadvantages cannot be denied but it can be ignored. These disadvantages are very little compare to advantages. Here are some ignoble disadvantages below demonstrate-

 

  • Protection: In many aspects we cannot protect our online account on web which helps us to buy and sell products online. Sometimes, this transaction cannot be trust worthy.

 

  • Risk: Sometimes, for payment transaction and buy products can be risky. People may face many fraud people in this online process.

 

  • Complicated System: This system is totally depending online. So, people who do not know how to use internet cannot reach E-Commerce.

 

  • Relation Problem: Loyal relation cannot build in online which we can find in manual relation. Online relations are not so strong all the time.

 

  • Network Problem: In developing country internet network is not so strong. So, people of these countries may face difficulties in using E-Commerce daily.

 

 

Impact of Advantages and Disadvantages

Everything in this world has merits and demerits. So, it’s totally up to us which things we want to receive and which things we need to avoid. Our using capabilities and utilization will prove the right as well as relevant results. This is not as tough as we think. If people are aware of using online services and its resources, we can overcome the disadvantages of E-Commerce. We should take the advantages of E-Commerce and discover the disadvantages cause and try to fix it. If we do so, we can not only enjoy more facilities in our internet but also can browse more features and services as well.

Increase Search Engine Crawl Rate

Increase Search Engine Crawl Rate

Search Engine Optimization service area simple and successful tips to increase site crawl speed
Firstly update your site content regularly and the content should be carries out the keywords what you want to show to traffic.

Increase your page rank with Google as the entire search engine high PR site crawl rate high,

Server is the most effective issue for visitor as no one want to stay in site for more times to load, as 80% of visitor are comes from search engine and search engine dose not shown only your site, so page load speed is too impotence for web site Google crawl.

Avoid duplicate content its mean don’t update any copy content what already published in some others site, duplicate content against of Google search engine quality.

Building block right of entry to not needed page via robots.txt

Using Google webmaster tools check and optimize Google crawl rate, by WMT you can see your site crawl rate now.

Once update your content most welcome to use ping services to demonstrate your site being there and give permission to bots recognize when your site content is reorganized

Once complete site submit to online directories,
Make alt tag to the entire use image in the site,
Overall use social media service once published you content and that will make you site crawl rate,

You are most welcome to our Service and Training

SEO Service by AMWebCreation in Gazipur, Dhaka, Bangladesh,

SEO Training from Gazipur, SEO Training,

Save

SEO Expert what need to check?

SEO Expert what need to check?

Before choice a SEO Expert what need to check?

We are going to discuss about hire a SEO expert for a website, and how to hire? What should be cost? And is the SEO expert’s works procedure,

Let’s start first why dose you need a SEO experts?

It’s needed because you have a very good looking website with very good information but you are not in first page of search results on Google, Bing or Yahoo, then your possible clients force not even knows about yours service, So for better search engine visibility you need a SEO experts who can boost your website with traffic to make your profit.

Now what should you know about a SEO experts before you hire him?

First you have to know how he doing with his current client does and what does he did for past client, does he have a list to show you. If yes check with his running clients how much benefit they have got from his service.

These references will help you to make a better choice of your service.

Secondly you how does will improve my website search engine rankings? This is a discussion about the methods what does SEO expert will be use to increase you search ranking? The SEO experts should explain you how he will work for your website and how much time he will be measure to do whole things.

Make sure the candidate’s proposal includes all the technical review of your web site to come out any issues that might lower your program ranking, as well as broken links and error pages. Also, raise a question to your SEO experts is they can do “off page” to boost awareness of your content on different websites, typically via blogs, social media platforms and press releases etc.

Thirdly you should ask him a question does he flow Google webmaster guide line, or Google content quality guide line?

Four you can ask a question to SEO experts can he guaranteed your website will complete a number-one ranking on Google, Bing or Yahoo like search engine?

If your SEO experts say yes he can make a guarantee about your website ranking, then make a agreement how and when (with in how many days) with him.

Five questions are you experienced at improving local search results? Appearing in the top of local search view in the top of local search engine outcome is particularly significant to small businesses sites in local area, To achieve a small business in local search result view in top the consultant should add the website same city and state, and title tags and meta descriptions too,

Six questions are how you can see all the changes what SEO Experts have been done to do the SEO work? Because you may know for a better search result there are some many things need to be do and all the changes you should know and your SEO experts should share with you too.

Seven questions how do you calculate the achievement of your SEO campaigns?
To measure the achievement of SEO work, you have to have calculate closely how much traffic have been come to your site and they come from where? For this calculation you can use is being Google Analytics, now question to be does you SEO experts know about Google Analytics?

Eight questions still there should be a one more question that would be about payments? How to pay and how much need to pay? Does this cost enough with your budget? Does the asking price is too high? For a small business the SEO experts should not ask more.

Need a SEO Experts in Bangladesh, Dhaka or Gazipur, AMWebCreation SEO Experts teams can help you to make you goal easy, as we believe we are the SEO and SMO experts in Dhaka.

Because we want to make a top talent SEO, SMO team in Bangladesh, Dhaka, Gazipur by organized professional IT training.

How to use Meta Tags within webpage

How to use Meta Tags within webpage

How to use “Meta Tags” within your webpage

When a user searches from a search engine or directory, the user enters words into a text box and presses the Search button. The words that the user enters are referred to as keywords. The server at the site that is being searched looks within a database for records that include those keywords. It then creates a page that lists some or all of the records that it found and includes links to the locations of those records.

The search engines and directories acquire their lists of keywords from several places. The most common method involves submissions. Many sites ask for a description of your site when you submit your URL, and they acquire keywords from within that description. Some sites provide separate boxes for you to enter your keywords.

Some search engines use automated software programs known as robots to gather information about web pages. These robots read the text and codes on web pages then store keywords and other information from the pages into their databases.

There are several things you can do to your web site that will prepare it and help it to be found when users do searches. These involve adding keywords to your pages within the first paragraph, within hidden [META] fields, specifying “type”, “source”, and “use”, and including keywords with your submissions.

Using keywords within the first paragraph

When a search engine uses a robot to gather information about your pages, they typically store the first few words (up to 200 characters) they find on your pages. These words are used as your keywords and are often presented as a description of your page.

Although the trend is towards graphical pages, a page that includes all graphics and no text will not likely be found during a search from many sites that use these robots to gather information. Likewise, a site that starts with a lot of promotional hype and little or no keywords will not likely be found either.

When designing a page, the author should try to use as many keywords as possible and include them within the first text that appears on the page. For example:

Poor
Welcome to AMWebCreation, Come on in and check it out! Our site has all the best website design service in the world at the lowest cost on the net and we guarantee your satisfaction . . .
Good
AMWebCreation is the best web design, development, Graphics design, SEO, SMO and professional IT training center in Gazipur, Dhaka, Bangladesh.

 

Using keywords within hidden <META> fields

Some search engine robots allow you to specify keywords, descriptions, and other information within hidden fields on your pages. When hidden fields are available, the robots use information from them rather than from the text that shows. Use the [META] tag within the [HEAD] element to do this. The basic syntax is:

<META name=”description” content=”Write your description here”>

Do not use any HTML tags within the “description” or “content” part of the META tag.

Suppose the HTML at the top of your web page looked like:

<HEAD>

<TITLE>AMWebCreation</TITLE>

<META name=”description” content=” AMWebCreation is the best web design, development, Graphics design, SEO, SMO and professional IT training center in Gazipur, Dhaka, Bangladesh.”>

</HEAD>

The following title and description would appear when your page is listed on a page of search results:

AMWebCreation Home Page

Home page AMWebCreation is the best web design, development, Graphics design, SEO, SMO and professional IT training center in Gazipur, Dhaka, Bangladesh.

Specifying keyword phrases:

You can use a second [META] tag to specify keyword phrases that further describe your web page. The basic syntax is:

<META name=”keywords” content=”Write your keywords here, in a comma separated list”>

For example:

<HEAD>

<TITLE> Your site name </TITLE>

<META name=”description” content=” Your site description. “>

<META name=”keywords” content=” Your target keywords”>

</HEAD>

Using <META> Tags to specify type, source and use

Some search engines utilize advanced forms of artificial intelligence to focus searches on specific types, sources and uses of the information provided in web pages. The AddURL form allows you to specify this information during submissions, but you should also include it within [META] Tags to allow robots to find it.

Specifying Types

The “type” field refers to the type of information that is provided on the web page. The most common types include “Home Page”, “Advertisement”, “Description”, “Entertainment”, “General”, “News”, “Personal”, “Quick Tour”, “Technical”, and “User Manual”. You should try to use one of these choices, and an example of the basic syntax is:

<META name=”type” content=”User Manual”>

Specifying Sources

The “source” field refers to the type of organization or person that is providing the information on the web page. The most common sources include “Advertise/Marketing”, “Association”, “Broker”, “Business Opportunity”, “Consultant”, “Contractor/Builder”, “Distributor”, “Education/Training”, “Engineer/Architect”, “Financial Service”, “Food/Drink Service”, “Government”, “Internet Service”, “Legal Service”, “Manufacturer”, “Manufacturer’s Rep”, “Military”, “News Service”, “Organization”, “Personal/User”, “Publication”, “Realtor”, “Research & Develop.”, “Retailer”, and “Service Provider”. You should try to use one of these choices, and an example of the basic syntax is:

<META name=”source” content=”Manufacturer”>

Specifying Uses

the “use” field refers to the primary application for which the information is intended. The most common uses include “Art & Entertainment”, “Business”, “Computers & Internet”, “General”, “Home”, “Life, Health & Sports”, “Literature & Science”, and “Transportation”. You should try to use one of these choices, and an example of the basic syntax is:

<META name=”use” content=”Art & Entertainment”>

 

Notes on Using <META> Tags and Images

Length of description and keywords

Your description can include up to 160 characters of text. The keywords can include up to 1000 characters of text.

Overusing keywords

Do not repeat the same keyword more than 7 times in the [META] tag. If you do this, the search engine may ignore the entire list of keywords.

Sites using Netscape or Microsoft frames

in your main HTML file (the file containing the [FRAMESET] tags), you should include a description of your site using [META] tags. Make sure that your description and keywords adequately summarize the contents of the frames on your page.

Sites using JavaScript

If JavaScript functions make up the first 200 characters on your page, you should use [META] tags to provide a description for your page.

Sites using images

Some sites also store the ALT attribute in the <IMG> tag. If your site mainly consists of graphics, you can also use the ALT attribute to describe your page.

Using keywords within submissions

The vast majorities of search engine and directory sites do not obtain keywords from your page automatically, and instead use information provided by you when you submit your pages to their site. Most of these sites extract the keywords from within the description text that you provide with your submission, while some require you to enter keywords in separate text boxes.

When submitting a page, the author should try to use as many keywords as possible and include them within a sentence in the description box. For example:

Title:
AMWebCreation
Keywords:
Web design
Web development
SEO
SMO
Description:
AMWebCreation is the best web design, development, Graphics design, SEO, SMO and professional IT training center in Gazipur, Dhaka, Bangladesh
Advantages of E-Commerce

Advantages of E-Commerce

Advantages of E-Commerce

Electronic E-commerce has working wonders like magic. E-Commerce has working through internet by selling and purchasing services and products as well. E-Commerce advantages can be seen in every sector of our modern lives. Likewise, marketing, shopping, consulting, design, graphics, solution, email marketing and so on. If anyone or any companies will use E-Commerce efficiently, they can broaden their national and international market with the smallest investment. In addition, any other person and organization can make their business convenient in terms of technology, supply, suitability, services and so on. It helps organizations to enhance output, quality and become well known to its consumers.

Advantages of E-Commerce for Business

With the increasing popularity of E-Commerce, now-a-days all kinds of business are depending on it with their business methods. It is quite easier than before to incorporate a workable elucidation for many business organizations. Moreover, there are several advantages which business organizations and related persons are received, and these are given below here-

In terms of Sales: Online sales are increasing dramatically from the last couple of years. Online buyer can pay their payments with PayPal, Visa card, Master Card.

  • In terms of Consumers: By seeing advertise online, people can choose their products, dress, needed goods very easily by sitting at home. Business organizations cannot attract their customers easily, and in this matter E-Commerce help them to do so.
  • 24/7 Hour services: Which business is not using E-Commerce they discover many troubles to open their business in 24/7 hours. Due to many foreign customers are also can be part of your business. So, you should be up to date all the time.
  • Immediate transaction: To transact instantly E-Commerce helps to do so. E-Commerce transactions are done within a seconds and receive fund constantly.

Advantages of E-Commerce for developing Country

Developing countries are take benefits more and go ahead with success with the help of E-Commerce. They use E-Commerce in every sector of their modern life. They reduce difficulties and use E-Commerce successfully to get prosperity. In other words, for standard products and reasonable prize, E-market place is opened. This process has zero risk with several new features. Developing countries can advertise their products to overseas and profit at foreign currencies. In addition, E-Commerce advantages are used efficiently by developing countries to get their goals. Developing countries remove their obstacles and go ahead to compete this competitive world. All the advantages are working in developing countries like blessings.

Advantages of E-Commerce for Consumers

Consumers are the most beneficial in today’s world through E-Commerce. E-commerce fulfills consumer’s needs and secures their lives. Consumers receive numerous advantages such as- 24/7 hours services, easy transaction, can buy and sell product at any where of the country. Similarly, this system provides their consumer quick delivery and more options. It has cheap and good quality products as well. People can collect information about a service and product in a quick view. Consumers do not need to travel for shop or market too. This system appearance is in any part of the world along with rural areas. Moreover, E-Commerce also helps to the Government to serve people education, healthcare, taxes and so on.

What need to check for complete On Page SEO?

What need to check for complete On Page SEO?

Hey friends we are going to discuss today about in-page/on page seo analysis, to make your website popular what should you need to check? This post for on page ranking factors, and can calculate on page SEO elements, and by the way we will understand the In-page SEO analysis, and as a reader you will be understand the on page SEO techniques too, Okay come to the below steps by steps, For a expats SEO all of you should flow this
First

You should have a best Title and then description and then you have to have put some target keywords,

Now come to example

Title

Example: AMWebCreation

Meta Description

Example: AMWebCreation is website design, development, SEO, SMO, CMS, eCommerce, clipping path, logo design & IT training center in Gazipur, Dhaka, Bangladesh

Meta Keywords

Example: website design, development, SEO, SMO, CMS, eCommerce, clipping path, logo design, IT training center in Gazipur,

Note- Please keep in mind all the keywords should be separate by comma (,) and descriptions not more than 155 characters’ and keywords you can use as much as you want, but putting too much keywords in a site without a better solutions for that that will make a spamming.

Now we are in second stage

What we need to see here and add to site

Add a nice logo, this will make your site and identity is in professional manner,

Favicon also is a unique identity of your organization,

Language

Use readable language for your website and make aware to search engine about your using language of your website increases readability of your webpage,

Page load speeds

Page load speed is most importance for visitor, as most of visitor are coming by search engine and search engine not only showing your site, so if your site loading slowly then visitor will visit some others site, this is nature of visitor, so be care full about your load speed. How to speed up you site is here?

URL Analysis

For example http://www.amwebcreation.com

This kind of URL’s are in a perfectly manner, no need to change anything here.

Text/HTML

You should add in supplementary textual article in your website, but if your website is not content based then try to focus on the little content that you have to make it keyword rich and matching in context to your webpage.

Images alt tag,

Use all the image alt tag for search engine, without alt tag search engine can’t found your site image in search result.

Inline CSS

Be careful about in line CSS, sometimes a lot of error can shown in CSS and as a result your site will be no index in search engine.

Email Address

Plain text email addresses are an inspiration to spammers and scammers so don’t use plain text email in your site

Check all the W3C Validity

Check if you have any broken link

Submit the site to search engine and create a good sitemap and submit to search engine.

Security Status

To check your site security status you can use;

McAfee site advisor

Norton safe web

Web of TrustWOT

Google safe browser

And over all almost you have to off your server signature

Free WordPress Themes, Free Android Games