আকর্ষণীয় অফারঃ

১৪ ই এপ্রিল বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে আউটসোর্সিং ও ফ্রিল্যান্সিং প্রশিক্ষণ একদম ফ্রি!!

ডিজিটাল মার্কেটিং কি এবং কেন?

ডিজিটাল মার্কেটিং কি এবং কেন?

পৃথিবীটা কম সময়ের মধ্যে ডিজিটাল পৃথিবীতে পরিণত হতে চলেছে। মোবাইল ফোন, কম্পিউটার, ল্যাপটপ,  এবং আরো অনেক ইলেক্ট্রনিক্স এর মাধ্যমে ডিজিটাল কন্টেন্ট ব্যবহার মানুষের একটি দৈনিক অভ্যাস হয়ে দাঁড়িয়েছে এবং বেশিরভাগ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানই এখনো তাদের বিপণন কৌশলে এটার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করতে পারছেনা। সত্যিকার অর্থে ডিজিটাল মার্কেটিং অন্যান্য মার্কেটিং এর চেয়ে অনেক বেশি দ্রুত ,বহুমুখী বাস্তব সম্মত। ডিজিটাল মার্কেটিং একই সাথে ভোক্তা এবং বিপনণকারী উভয়েরই সমান উপকারে আসে। সুতরাং যুগের পরিবর্তনের সাথে সাথে মার্কেটিং এর অনেক পরিবর্তন হয়েছে। ইন্টারনেট প্রযুক্তি মাধ্যমে মার্কেটিং পদ্ধতিই হল ডিজাটাল মার্কেটিং।

ডিজিটাল মার্কেটিং ভোক্তাদের নিকট যে কোন সময় যে কোন প্রকার তথ্য পৌছে দেয়ার জন্য অন্যতম। ধরুন ডিজিটাল মিডিয়া টেলিভিশন একমুখী প্রচার মাধ্যম। এর মাধ্যমে ভোক্তার রুচি চাহিদা সম্পর্কে অবগত হওয়া যায় না। ডিজিটাল মিডিয়া খবর, বিনোদন,  কেনাকাটা এবং সামাজিক ইন্টারঅ্যাকশন একটি সদা বর্ধমান উৎস এবং ভোক্তাদের এখন না শুধু আপনার কোম্পানি আপনার ব্র্যান্ড সম্পর্কে বলেছেন, কিন্তু  মিডিয়া, বন্ধু, আত্মীয়স্বজন, সহকর্মীরা, কি বলছে সেটা যেমন উন্মুক্ত হয় এবং তারা আপনার চেয়ে তাদের বিশ্বাস করার সম্ভাবনা বেশি। মানুষ তাদের চাহিদা এবং পছন্দ মতন তারা বিশ্বাস করতে পারেন ব্রান্ডের। ডিজিটাল মার্কেটিং একমাত্র পদ্ধতি যা সর্ব স্তরের ক্রেতা এবং ভোক্তার নিকট পৌছানো যায়। এবং তাদের ব্র্যান্ড সম্পর্কে তাদের মতামত সরাসরি জানা যায়।

কেন ডিজিটাল মার্কেটিং?

প্রথমত, ডিজিটাল মার্কেটিং প্রচলিত অফলাইন মার্কেটিং পদ্ধতির চেয়েও আরও বেশি সাশ্রয়ী হয়। একটি টিভি বিজ্ঞাপন বা সংবাদপত্র অ্যাড এর চেয়ে খরচ অনেক কম। তাছাড়া ডিজিটাল মার্কেটিং পৃথিবীর যে কোন প্রান্তে বহু সংখ্যক সম্ভাব্য ক্রেতার কাছে পৌঁছতে পারে।

ডিজিটাল মার্কেটিং এর প্রতিটি ধাপ এবং পর্যায় আপনি পরিমাপ করতে পারেন। কোন ডিজিটাল মিডিয়া আপনার কতটা কাজে আসছে? কতজন প্রতিদিন অ্যাড হচ্ছে? কতজন লাইক দিচ্ছে? ওয়েবসাইটে কতজন প্রতিদিন ভিজিট করছে প্রতিটা কার্যক্রম পরিমাপযোগ্য। আপনার যদি ওয়েবে উপস্থিতি না থাকে, কিভাবে আপনি সম্ভাব্য ক্রেতাদের আপনাকে খুঁজে পাবে বলে আশা করেন? ইন্টারনেটে চমৎকার কন্টেন্ট, চমৎকার প্রোডাক্ট গ্যালারী, চমৎকার প্রোডাক্ট রিভিউ থাকে তাহলে মানুষ আপনার ক্ষেত্রে আপনাকে বিশেষজ্ঞ হিসেবে ধরে নেবে। আপনি যদি সামাজিক মিডিয়ার মাধ্যমে গ্রাহকদের এবং সম্ভাব্য গ্রাহকদের সাথে যুক্ত থাকেন, তাদের প্রশ্নের উত্তর দেন তাহলে,আপনি তাদের সঙ্গে বিশ্বাস গড়ে তুলতে পারবেন আর তখন তারা আপনার প্রতিযোগীদের কাছে নয় আপনার কাছে আসবে।

অনলাইনে এক পরিসংখ্যান অনুযায়ী ৯২% ভাগ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান যারা ব্লগিং করে তারা অনলাইনে নতুন গ্রাহক পায়, প্রায় প্রতিদিন। সোশ্যাল মিডিয়ার প্রায় ১০০% বেশি লিড আসে অন্যান্য মার্কেটিং এর তুলনায়, প্রায় ৭৭% ব্যবসা প্রতিষ্ঠান তাদের নতুন গ্রাহক পায় ফেসবুক থেকে। মনে রাখবেন আপনার গ্রাহকরা বেশিরভাগ সময় আছেন অনলাইনে এবং এই সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। অনলাইন ডিজিটাল মার্কেটিংএ আপনাকে এমন নতুন কোন চমৎকার কৌশল ধরে রাখতে হবে, যা সর্বদা আপনাকে আপনার প্রতিযোগীদের থেকে এগিয়ে রাখবে। আপনাকে এমন কিছু করতে হবে আপনার প্রতিযোগীদের চিন্তায় যা আসে নি।

কিভাবে শিখবেন ডিজিটাল মার্কেটিং?

বাংলাদেশে ওয়েবসাইট ডিজাইন ডেভেলপমেন্ট, সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন, গ্রাফিক্স ডিজাইন ইত্যাদি শেখার অনেক ট্রেনিং সেন্টার পাবেন কিন্তু ডিজিটাল মার্কেটিং শেখার জন্য ভাল কোন ট্রেনিং সেন্টার একমাত্র গাজীপুরের এ এম ওয়েব ক্রিয়েশন। আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং অন্য কোন উপায়ে শিখতে পারবেন না। শিখতে পারলেও আপনি ভাল কোন কাজ করতে পারবেন না।

তবে আর দেরী কেন এখনি চলে আসুন আমাদের এই ঠিকানায়।

AMWebCreation
House#1069, Sheikh Manshion, Shibbari Road,
(Opposite of Siam CNG Pump), Gazipur Chowrasta,
Gazipur City Corporation, Gazipur
Telephone: 0249263136
Mobile: 01881049394
E-mail: amwebcreation@yahoo.com

Leave a Reply

Free WordPress Themes, Free Android Games