আউটসোর্সিং কি, কেন এবং কিভাবে আউটসোর্সিং করবেন?

আউটসোর্সিং কি, কেন এবং কিভাবে আউটসোর্সিং করবেন?

আউটসোর্সিং কি

আউটসোর্সিং শব্দটি অনেকের সাথে পরিচিত। আবার অনেকের কাছে কথাটি নতুন। আউটসোর্সিং হচ্ছে তথা ফ্রিল্যান্সিং, এর অর্থ হল একটি স্বাধীন পেশা। অর্থাৎ স্বাধীনভাবে কোন কাজ করে আয়ের একটি অন্যতম পেশা। একটু সহজ ভাবে বলতে গেলে, ইন্টারনেটের মাধ্যমে অন্য কোন বা ভিন্ন প্রতিষ্ঠান ভিন্ন ধরনের কাজ প্রদান করে তা ফ্রিল্যান্সারদের মাধ্যমে তা করিয়ে নেয়া। নিজের প্রতিষ্ঠান ব্যতীত অন্য কোন ব্যক্তি বা কোন প্রতিষ্ঠানকে দিয়ে  কাজ করানোকেই মূলত আউটসোর্সিং বলে। যারা আউটসোর্সিংয়ের কাজ করেন,  তারাই মূলত ফ্রিল্যান্সার।

কেন আউটসোর্সিং করবেন

বিশ্বের প্রায় প্রত্যেকটি দেশেই তথা আমাদের বাংলাদেশে আউটসোর্সিং জগতে কাজ করে এমন লাখ লাখ ফ্রিল্যান্সার রয়েছেন। কিন্তু তাদের সবাই শতভাগ সফল নয়। তারা কিছু অসৎ লোকের পাল্লায় পড়ে আউটসোর্সিং এর উপর নেতিবাচক ধারণা তৈরী হয়েছে। সবসময় মনে রাখবেন আউটসোর্সিং একটি স্বাধীন বা মুক্ত পেশা,  যেখানে আপনার ব্যক্তিগত জবাবদিহিতার চেয়ে কাজের জবাবদিহিতা অনেক বেশি। আপনি এই জগতে আসবেন অবশ্যই আয় করার জন্য। একটি কথা সবসময় মনে রাখবেন, আপনি যার কাছ থেকে টাকা উপার্জন করবেন তাকে কোন না কোন সেবা প্রদান করেই এই অর্থ উপার্জন করতে হবে। তাই যদি হয়, আপনার কাজে যদি ত্রুটি থাকে, আপনার কাজে যদি কোন প্রকার জবাবদিহিতা না থাকে,  এবং আপনার কাজে যদি অনেক কোন স্বচ্ছতা না থাকে তবে আপনার পক্ষে এই সেক্টরে সফল হওয়া অসম্ভব। আউটসোর্সিং এ সবসময় আপনি নিজেকে দিয়ে মূল্যায়ন করবেন। আপনার কাজের দক্ষতা আপনাকে উপরের দিকে যাওয়ার রাস্তা তৈরি করে দিবে, তাই আপনাকে যে কাজ দেওয়ার হবে সেই কাজ যদি আপনি সঠিক ভাবে সঠিক সময়ের মধ্য দিয়ে কাজটি গ্রাহককে প্রদান করতে না পারেন তাহলে আপনাকে সেখান থেকে ছিটকে যেতে হবে সেই মুহূর্তেই, আর যদি তা পজিটিভ হয়, তাহলে সেও খুশি থাকবে এবং আপনারও ভবিষতে কাজ পাওয়ার সম্ভাবনাও অনেক বেড়ে যাবে।

কিভাবে আউটসোর্সিং করবেন

আমরা আউটসোর্সিং করা যতটা সহজ ভাবি কাজটা আসলে ততটা সহজ নয়। আসলে এই পৃথিবীতে কোন কাজই সহজ নয়। আমরা ভাবি একরকম কিন্তু বাস্তবে অন্যরকম। অনেকেই চিন্তা করেন আউটসোর্সিং করে ঘরে বসেই খুব সহজে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করা যায়। কিন্তু বাস্তবে অনলাইনে আয় করার চিত্রটা একটু ভিন্ন। আপনার যদি অনলাইনে কাজের দক্ষতা থাকে তাহলে শুধুমাত্র আউটসোর্সং নয় অন্য যেকোন সেক্টরে আপনি খুব সহজেই সফল হতে পারেন। আউটসোর্সিং এর ভিন্নতা হল, এখানে (আউটসোর্সিং) কাজ করা এবং অনলাইনে কাজ পাবার স্বাধীনতা আছে যা আপনি অন্য কোন সেক্টরে তা পাবেন না। পার্থক্য হল আপনার পরিশ্রমের সঠিক মূল্যায়ন এখানে করা হবে।  অন্যান্য পেশায় যার জন্য প্রতিনিয়ত কর্তাদের সঙ্গে কর্মকর্তাদের মন কাষাকষি হরহামেশই লেগেই থাকে, যা আউটসোর্সিং করলে আপনি পাবেন না। এক কথায় আউটসোর্সিং হল উপযুক্ত কাজ করে এবং তা থেকে সহজ পদ্ধতিতে আয় করার একটি অন্যতম উৎস। যেখানে আপনার সফল হতে হলে, অবশ্যই আপনাকে প্রথমেই দক্ষতা অর্জন করতে হবে, এবং কাজ করার জন্য আপনাকে সঠিক মার্কেটপ্লেসে বেচে নিতে হবে।

কিভাবে মার্কেটপ্লেসে কাজ করবেন

ফ্রীল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে হলে আপনাকে নির্দিষ্ঠ একটি বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করতে হবে। যেমন-ওয়েব ডিজাইন, ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন, গ্রাফিক্স ডিজাইন এবং ডিজিটাল মার্কেটিং ইত্যাদি এ সকল বিষয় সমূহের মধ্যে যে কোন একটি জানতে হবে। শুধু এই বিষয় গুলোই নয় আরও অনেক ক্ষেত্র আছে যা শিখে আপনি আউটসোর্সিং করতে পারবেন। আপনি কোন প্রতিষ্ঠান থেকে যে কোন বিষয়ের উপর প্রশিক্ষণ গ্রহণ করে আপনি মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে পারেন।

এ সম্পর্কিত যে কোন প্রশ্ন, কৌতুহল, জিজ্ঞাসা, কিংবা আরও বিস্তারিত জানতে এই লিংকে ক্লিক করুন।

Leave a Reply

Free WordPress Themes, Free Android Games